ঈদ স্পেশাল

ঈদের সকালের নাস্তা

সংগ্রহ করেছেন ইফফাত জাহান

দেখতে দেখতে আবার চলে এলো ঈদের সময়। আর কিছুদিন পরেই ঈদ। ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি, ঈদের দিনে সবাই চেষ্টা করে বিশেষ কিছু খাবার তৈরি করার। তার মধ্যে ঝালের পাশাপাশি মিষ্টির আয়োজনও থাকে। তাই আপনাদের জন্য ঈদের সকালের নাস্তার  কিছু স্পেশালঝাল মিষ্টি রেসিপি তুলে ধরা হল।

১। শাহি টুকরা
উপকরণ : পাউরুটি ৮ পিস, দুধ ১ কেজি, চিনি ১/২ কাপ, ক্রিম সাজানোর জন্য পেস্তাবাদাম (কুচি) সাজানোর জন্য, ঘি ভাজার জন্য।

ণালী : প্রথমে পাউরুটি চারপাশ থেকে কেটে নিন। চুলায় পাত্র দিয়ে তাতে ঘি গরম দিন। ঘি গরম হলে তাতে পাউরুটি ভেজে তুলুন। অন্য একটি পাত্রে দুধ জ্বাল দিন। ঘন হলে নামিয়ে রাখুন। সার্ভিং ডিশে পাউরুটি লেয়ারে সাজিয়ে ওপরে চিনি মিক্স করা ঘন দুধ ঢেলে দিন। ওপরে পেস্তাবাদাম কুচি ও ক্রিম দিয়ে পরিবেশন করুন।

 

২। পুডিং

2154
উপকরণ : ডিম ৪টা, দুধ আধা কেজি, চিনি বড় চায়ের কাপের ১ কাপ। ভেনিলা এসেন্স আধা চা চামচ।

প্রণালী : প্রথমে ডিম ও চিনি খুব ভালোভাবে বিটার দিয়ে ফেটিয়ে নিতে হবে, তারপর দুধ ঘন করে জাল দিয়ে ঠাণ্ডা করে ডিমের সঙ্গে আবার ফেটিয়ে সঙ্গে ভেনিলা এসেন্স দিতে হবে। এবার আলাদা একটি সসপ্যানে সামান্য চিনি দিয়ে চুলায় বসিয়ে লাল রং করে নিতে হবে। তারপর ঠাণ্ডা হলে সসপ্যানে ফেটানো ডিম ঢেলে দিতে হবে। এরপর অন্য একটি বড় হাঁড়িতে পানি দিয়ে সসপ্যান বসিয়ে তারপর ঢেকে দিয়ে ৩০ মিনিট পর নামিয়ে ফেলতে হবে। ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন পাত্রে ঢেলে কাটতে হবে।

৩। চিকেন পাস্তা

wzg1EAJWo4oL

উপকরনঃ
১.পেনে পাস্তা- ৫০০ গ্রাম
২.চিকেন ছোট টুকরা- ২ কাপ
৩.অলিভ অয়েল- ২ টেবিল চামচ
৪.পেয়াজ- ১ টি (মিহি কুচি)
৫.রসুন কোয়া কুচি- ৬ টি
৬.পার্সলে গুড়া- ১ চা চামচ
৭.টমেটো কুচি- ৫০০ গ্রাম
৮.লবন- (স্বাদ মত)
৯.গোলমরিচ- পরিমাণ মত।

প্রণালীঃ
*প্যানে অলিভ অয়েল দিয়ে এতে রসুন কুচি হালকা বাদামী করে ভেজে আলাদা করে তুলে রাখুন।
*ওই তেলেই পেঁয়াজ ভেজে তারপর টমেটো দিয়ে ১০ মিনিট রান্না করুন। টমেটো গলে গেলে লবন, গোলমরিচের গুড়া আর পার্সলে গুড়া দিয়ে আরো কয়েক মিনিট রান্না করুন। হয়ে গেল টমেটো সস।
*আলাদা প্যানে অল্প তেলে অল্প লবন আর গোল মরিচ গুড়া দিয়ে চিকেন টুকরোগুলো ভেজে নিন ।
*পাস্তা সিদ্ধ করে নিন, তারপর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে হাফ চা চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে ভালো করে পাস্তা গুলো মাখুন। এতে পাস্তা আঠার মত লেগে থাকবে না।
*টমেটো সসের মধ্যে পাস্তা আর চিকেন দিয়ে ২ মিনিট বেশি আঁচে ভাজুন।
…উপরে চীজ চড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার চিকেন পাস্তা।
>>যে সস বানানোর রেসিপিটা দেওয়া হল এটা পাস্তার বেসিক সস। এটা দিয়ে সব ধরনের পাস্তা রান্না করতে পারবেন।

 

৪। গুড়ের পায়েস

dsc04481
উপকরণ : পোলাওর চাল ৫০০ গ্রাম, খেজুরের গুড় ২ কেজি, দুধ ৪ লিটার, এলাচ ৪টি, দারুচিনি ৪ টুকরা, তেজপাতা ২টি, বাদাম-কিশমিশ নিজের পছন্দমত।
প্রণালী : প্রথমে চাল ভালো করে ধুয়ে ঝরিয়ে নিন। দুধ ও গুড় জ্বাল দিয়ে নিন। এবার চাল আলাদা পাত্রে ফুটিয়ে নিন। তারপর দুধ, গুড় ও ফোটানো চাল এক সঙ্গে জ্বাল দিন। ফুটে উঠলে এলাচ, দারুচিনি ও তেজপাতা দিয়ে দিন। এবার জ্বাল দিতে থাকুন, ঘন হয়ে এলে নামিয়ে বাদাম-কিশমিশ দিয়ে পছন্দমত সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

৫। স্পেশাল মিক্স খিচুড়ি

khicuri

উপকরণ : পোলাও চাল ২ কাপ, মুগডাল ১/২ কাপ, পেঁয়াজ কুচি ২ টে. চামচ, আদা কুচি ১ চে. চামচ, মসুর ডাল ১/২ কাপ, তেজপাতা ৩-৪টি, হলুদ গুড়া ১/২ চা. চামচ, বুটের ডাল ১/২ কাপ, কাঁচামরিচ ৪-৫টি, আলু (কিউব কাটা) ১/২ কাপ, পেঁপেঁ কিউব কাটা ১/২ কাপ, লবণ পরিমাণমতো, গাজর (কিউব কাটা) ১/২ কাপ, শুকনা মরিচ ৩-৪টি, চিনি পরিমাণ মতো, সয়াবিন তেল ১/২ কাপ, ঘি ১ টে. চামচ, গরম মসলা ৩-৪টি, পানি ৪ কাপ

প্রণালী : চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। মুগডাল ভেজে নিন। অন্য সব ডাল ধুয়ে নিন। চুলায় পাত্র দিয়ে তাতে তেল দিন। তেল গরম হলে আদা দিয়ে বাদামি রং হলে পেঁয়াজ কুচি, রসুন, হলুদ শুকনা মরিচ, তেজ পাতা, লবণ সামান্য দিয়ে পানিসহ কষান। মশলা কষানো হলে তাতে সব সবজি দিয়ে দিন। সবজি পিঙ্ক হলে চাল দিন। চাল কষানো হলে পরমািণমত গরম পানি দিয়ে রান্না করুন। চাল সিঙ্ক হলে চিনি, কাঁচামরিচ, ঘি দিয়ে ৫ মিনিট দমে রাখুন। এবার নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার স্পেশাল মিক্স খিচুড়ি।

৬। পসান্দা পেশোয়ারি

উপকরণ : রানের মাংস ১ কেজি, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, টক দই ১ কাপ, পোস্তবাটা ৪ চা চামচ, রসুন কোয়া ৭-৮টি, জাফরান আধা চা চামচ, দারুচিনি এলাচ ৫-৬টি, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, লালমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, চিনি ১ চা চামচ।

প্রণালী : হাড়বিহীন মাংস পাতলা স্লাইস করে কেটে চা-পট দিয়ে পিটে আরও পাতলা করে নিন। পেঁয়াজ, রসুন ও দারুচিনি এলাচ বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে মাংসের সঙ্গে মেখে ১ ঘণ্টা মেরিনেট করে রাখুন। এবার চুলায় নিয়ে পাত্রে তেল দিন। তেল গরম হলে তাতে দারুচিনি, এলাচ, পেঁয়াজ কুচি ও রসুন কোয়া দিয়ে ভাজুন। কিছুক্ষণ পর মেরিনেট করা মাংসগুলো দিয়ে ২০ মিনিট কষিয়ে পানি দিয়ে দিন। পানি শুকিয়ে মাখা মাখা হলে নামিয়ে নিন।

Comments

comments