রাজনীতির মঞ্চে ফিরতে প্রস্তুত হিলারি ক্লিনটন

মার্কিনিদের মধ্যে একতা প্রতিষ্ঠা করতে ফের মাঠে নামতে চান তিনি। নিউ ইয়র্কের মেয়র পদে লড়বেন এমন গুঞ্জন যখন শোনা যাচ্ছিল, তখন হিলারি নিজেই জানালেন রাজনীতিতে প্রত্যাবর্তনের কথা। বললেন, ‘আড়াল থেকে বেরিয়ে আসতে প্রস্তুত তিনি।’ পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে নিজের শহর স্ক্র্যানটনে সেইন্ট প্যাট্রিক দিবসে বক্তব্য দেয়ার সময় এ কথা বলেন তিনি। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি। সাবেক এই ফার্স্টলেডি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডনাল্ড ট্রাম্পের কাছে পরাজিত হন। জনপ্রিয় ভোট বেশি পেলেও ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটের হিসাবে হোয়াইট হাউজের দৌড়ে পিছিয়ে পড়েন তিনি। এরপর থেকে একপ্রকার আড়ালেই ছিলেন হিলারি। শুক্রবার আইরিশ নারীদের একটি গ্রুপের সামনে বক্তব্য রাখেন তিনি। এতে তিনি বলেন, ‘আমার অবস্থা এখন আমার অনেক বন্ধুর মতো। খবর দেখতে কষ্ট হয় আমার।’  তবে, তিনি সমস্যা সমাধানে বিভক্ত হয়ে পড়া দেশের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি না যে আমরা রাজনৈতিক বিভক্তিতে ব্যক্তিগত বিভক্তিতে ঢুকতে দিতে পারি। আর কেউ আমাদের সঙ্গে রাজনৈতিকভাবে ভিন্নমত পোষণ করার কারণে আমরা তাদের উপেক্ষা করতে পারি না।’ হিলারি আরও বলেন, রাজনৈতিক বিভক্তি জোড়া লাগানোর ভার নাগরিকদের, গভীরভাবে মেরুকরণ হওয়া ওয়াশিংটনের নয়। উল্লেখ্য, সম্প্রতি খবর আসে যে নিউ ইয়র্ক শহরের মেয়রের পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা বিবেচনা করছেন হিলারি। তিনি সরাসরি এমন সম্ভাবনার কথা না উল্লেখ করলেও, রাজনীতিতে যে ফিরবেন সে আভাস দিলেন। নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হারার পর মেয়র পদে হিলারির লড়ার সম্ভাবনা নিয়ে গুঞ্জন কয়েক বারই উঠেছে। জানুয়ারি মাসে কুইনিপিয়াক ইউনিভার্সিটির এক জরিপে দেখা গেছে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়লে নিউ ইয়র্কের বর্তমান মেয়র বিল দে ব্ল্যাসিও’কে হেসে খেলেই হারাবেন হিলারি।

Comments

comments